আড়াইহাজার উপজেলা

আড়াইহাজারে বাড়ির সদস্যদের বেঁধে বেধড়ক মারধর ও ডাকাতি

স্টাফ রির্পোটার: নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজারে মোঃ আক্তার হোসেনের পরিবারের সদস্যদের বেঁধে রেখে এক দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাত দল সাড়ে তিন ভরি স্বর্ণ, নগদ অর্থ সহ প্রায় ‍সাড়ে ৫লক্ষ টাকার মূল্যবান মালামাল লুটে নেয়।

১৫ই মে ভোর ৩টার দিকে উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়ণের বাইলাট বগাদী এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী আক্তার হোসেন জানায়, ভোর ৩টার দিকে ডাকাত দল তাদের কাঠের দরজা ভেঙ্গে হানা দেয়। প্রবেশ করেই ঘরে থাকা লোকজনের হাত-পা বেধে গলায় ছুরি ধরে রাখে, পরবর্তীতে আক্তার হোসেনের ছোট ছেলে আরাফাত চিৎকার দেওয়ার চেষ্টা করলে ডাকাতদল তাৎক্ষণিক সবার মুখের ভিতরে কাপড় দিয়ে মুখ বেঁধে ফেলে। এসময় ডাকাত দল ঘরে থাকা নগদ অর্থ কম পেয়ে আক্তার হোসেন কে টাকার সন্ধানের জন্য অমানুষিক নির্যাতন এবং ছুড়ি দিয়ে আঘাত করে। লুটপাটের পর ডাকাত দল পালিয়ে গেলে তার ডাক চিৎকারে এলাকাবাসী এসে আক্তার হোসেন কে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় ও তার পরিবারের লোকজনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

আক্তার হোসেনের পরিবার বরাত জানা যায়, ডাকাত দল প্রায় সাড়ে তিন ভরি স্বর্ণ, নগদ ৬০হাজার টাকা, ৪টি স্মার্ট ফোন এবং ঘরে থাকা অনেক মূল্যবান জিনিসিপত্র লুট করে নেয়। যার মোট আনুমানিক মূল্য সাড়ে পাচঁ লক্ষ টাকা।

এই বিষয়ে আড়াইহাজারে থানায় একটি ডাকাতির অভিযোগ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন >   আড়াইহাজারে পূর্ব শত্রুতার জেরে কুপিয়ে জখম
আরও দেখুন

সম্পৃক্ত

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button