সারাদেশে

আড়াইহাজারে রিয়াদ হত্যা মামলা কেন্দ্র করে আসামিদের বাড়িতে হামলা

স্টাফ রির্পোটার: নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের সালমদী গ্রামের শিশু রিয়াদ (৭) হত্যা মামলাকে কেন্দ্র করে আসামিদের বাড়িঘরে উত্তেজিত গ্রামবাসী হামলা ভাংচুর ও ১০টি গরুসহ মালামাল লুট করার অভিযোগ উঠেছে ।

বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) শিশু রিয়াদ এর ময়নাতদন্তের পর লাশ দাফনের পূর্ব মূহুর্তে শালমদী গ্রামের উত্তেজিত জনতা খিরদাসদী গ্রামে সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত জিলানী সহ কাজী মোবারক, কবির হোসেন, শফিকুল ইসলাম ও আলী হোসেন নামে পাঁচ জনের বাড়ী ঘর ভাংচুর ও লুট করার এই ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দুইদিন নিখোঁজ থাকার পর বুধবার বিকেলে একটি পুকুর থেকে শিশু রিয়াদের লাশ পাওয়া যায়। নিহত রিয়াদ সালমদী গ্রামের বাবুল মিস্ত্রির ছেলে। এই ঘটনায় বাবুল মিস্ত্রি বাদী হয়েছে পাশের খিরদাসী গ্রামের জিলানী, আরমান, ফয়সাল, রমজান এবং রাসেলকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সালমাদীর উত্তেজিত গ্রামবাসী আসামিদের বাড়িতে হামলা চালায়। এই সময় ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

ভুক্তাভোগীরা জানিয়েছেন, স্বর্ণালংকার, ১০টি গবাদী পশু, পাওয়ারলুম কারখানার মালামাল সহ সর্বস্ব লুটপাট করে নিয়ে যায় দুবৃর্ত্তরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। এ সময় ঘটনাস্থলে খোকন (৩০) নামে একজন গুলিবিদ্ধ হয়। গুলিবিদ্ধ খোকনকে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করেন।

আরও পড়ুন >   আড়াইহাজারে বিএনপির মিছিলে আ.লীগের হামলা, পুলিশ সাংবাদিকসহ আহত-১৭

বিষয়টি নিশ্চিত করে আড়াইহাজার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জোবায়ের হোসেন জানান, শিশু হত্যার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজিত গ্রামবাসী আসামিপক্ষের বাড়িঘরে হামলা চালিয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

আরও দেখুন

সম্পৃক্ত

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button